অবৈধ গ্যাস ব্যবহার গাজীপুরে ১৪ জনকে জরিমানা, একজনের কারাদন্ড প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার :
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের পূর্ব চান্দনা, বোর্ডবাজার কাথোরা, শহীদ সিদ্দিক রোড, মোগড়খাল ও শরীফপুর এলাকায় অবৈধ সংযোগের মাধ্যমে গ্যাস ব্যবহারের দায়ে ১৪ জনকে ৫ লাখ ৩১ হাজার টাকা অর্থদন্ড ও একজনকে ১৫ দিনের কারাদন্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়া অবৈধ গ্যাস ব্যবহারের দায়ে একটি ওয়াশিং প্ল্যান্ট সিলগালা করে বন্ধ করে দেওয়া হয়। তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ ও গাজীপুর জেলা প্রশাসনের যৌথ অভিযান ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে এসব জরিমানা ও কারাদন্ড প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদুর রহমানের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয় ।
তিতাস গ্যাস গাজীপুর আঞ্চলিক অফিসের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সুরুজ আলম জানান, সিটি করপোরেশনের পূর্ব চান্দনা এলাকার বিভিন্ন বাসাবাড়ীতে অবৈধ গ্যাস ব্যবহারের দায়ে পারুলকে ২০ হাজার, ঝরনা বেগমকে ২০ হাজার, সবুজ বাংলা বেকারীর মালিক মোঃ আজাদকে ৫০ হাজার, সুফিয়াকে এক হাজার, সোহেলী বেগমকে ২০ হাজার, নাজমা আক্তারকে ৩০ হাজার, ফাতেমা বেগমকে ৫০ হাজার, সবুজ মিয়াকে ২০ হাজার, হুমায়ূন কবিরকে ৬০ হাজার, সেলীমকে ৬০ হাজার, আব্দুস সালামকে ১০ হাজার ও আব্দুল মতিনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে তাৎক্ষনিকভাবে তা আদায় করা হয়। অন্যদিকে বোর্ডবাজারস্থ শহীদ সিদ্দিক রোড এলাকায় অবস্থিত মেসার্স পারফেক্ট ওয়াশিং লিমিটেড এ অনুমোদনহীন গ্যাস কম্প্রেসর বা বুস্টার ব্যবহার করার দায়ে এর মালিক সবুজ মিয়াকে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই দিন কাথোরা এলাকার এমা ড্রাই প্রসেস নামক একটি ওয়াশিং প্ল্যান্টে অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহারের দায়ে প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজার আনিসুর রহমানকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ১ লক্ষ টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয় এবং প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করে বন্ধ করে দেওয়া হয়।
এছাড়া মোগরখাল ও শরীফপুর কোনাপাড়া এলাকায় ৪টি স্পটে অবৈধভাবে স্থাপিত দুই ইঞ্চি ও এক ইঞ্চি ব্যাসের ২.৫ কিলোমিটার পাইপ লাইনের সংযোগস্থলসহ ১০০ মিটার পাইপ লাইন অপসারণ করে গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। ফলে প্রায় ৫০০ টি বাড়ীর আনুমানিক ১২০০ অবৈধ চুলায় গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।
অভিযান পরিচালনাকালে তিতাস অফিসের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোঃ সুরুয আলম, উপব্যবস্থাপক প্রকৌশলী আবু সুফিয়ান, মির্জা শাহনেওয়াজ লতিফ, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সাবিনুর রহমান, সহকারী কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, মোঃ ইকবাল হোসেন চৌধুরী এবং বিক্রয় সহকারী আনোয়ার হোসেনসহ টেকনিক্যাল টিম, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *