ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে শ্রমিক বিক্ষোভ, আহত ২০

স্টাফ রিপোটার

ঈদের ছুটি বৃদ্ধি, বোনাসসহ বিভিন্ন দাবিতে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করে কারখানায় ভাঙচুর চালান শ্রমিকরা। এ সময় অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার হরিণহাটি এলাকায় স্থানীয় এপেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেড নামে জুতা কারখানার শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ করেন।

এ সময় শ্রমিকরা সড়কে চলাচলরত যানবাহন ভাঙচুরসহ কারখানায় হামলা চালান। এতে পুলিশ-সাংবাদিকসহ ২০ আহত হয় বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় মহাসড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

শ্রমিক, পুলিশ ও কারখানা সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে উপজেলার হরিণহাটি এপেক্স ফুটওয়্যার কারখানার শ্রমিকরা সকালে কাজে যোগদান করেন। এর পর শ্রমিকরা ঈদের ছুটি বৃদ্ধি, গত রমজানের ঈদের হাফ বোনাস, পাঁচ মাসের বন্ধ বোনাস দাবি, বর্তমান মাসের বেতন, ওভারটাইমসহ কয়েক দফা দাবিতে শ্রমিকরা কাজ বন্ধ করে কর্মবিরতি শুরু করেন।

একপর্যায়ে শ্রমিকরা কারখানার প্রধান গেটের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন। পরে উত্তেজিত শ্রমিকরা কারখানায় হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেন।

পরে শ্রমিকরা সকাল ৯টা থেকে কারখানার পাশে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করেন।

খবর পেয়ে থানার পুলিশ, শিল্পপুলিশ ঘটনাস্থলে এসে শ্রমিকদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে নিতে ব্যর্থ হয়। মহাসড়ক অবরোধের ফলে সড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। সড়কে চলাচলরত যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

শ্রমিকদের দাবি, গত পাঁচ মাস ধরে আমাদের হাজিরা বোনাস দিচ্ছে না। ঈদের ছুটি মাত্র তিন দিন। ১২ ঘণ্টা ওভার টাইম করেও শুক্রবার ডিউটি করতে হয়। এসব দাবি করলেও আমাদের দাবি-দাওয়া নাকচ করে উল্টো মিথ্যা হুমকি-ধমকি দিয়ে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের হুমকি দিচ্ছে।

কারখানার জেনারেল ম্যানেজার হারুন বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। কারখানায় গিয়ে বিস্তারিত বলা যাবে।

গাজীপুর শিল্পপুলিশের ওসি রেজাউল করিম বলেন, বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে এপেক্স ফুটওয়্যার কারখানার শ্রমিকরা কারখানায় হামলা চালিয়ে ভাঙচুরসহ সড়ক অবরোধ করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *