গাজীপুরে নির্যাতনের পরনারীকে শ্বাসরোধে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার
গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ী এলাকা থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম মোসা: আছিয়া বেগম (৩৪)। তিনি টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার চাকুরিয়া হাওল ভাঙ্গা এলাকার আমির হোসেনের মেয়ে।
মঙ্গলবার কোনাবাড়ি থানাধীন আমবাগ পশ্চিমপাড়া আকসা মসজিদের গলির ভিতর রাস্তার পাশ থেকে ওই নারীর মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত ওই নারীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। পুলিশের ধারণা ওই নারীকে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।
পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর গাজীপুরের পুলিশ সুপার মো: মাকসুদের রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, নিহতের আঙ্গুলের ছাপ ব্যবহার করে জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে তার পরিচয় শনাক্ত করেছে। নিহতের গ্রামের ঠিকানায় পরিচয় যাচাইয়ের চেষ্টা করা হচ্ছে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ী থানাধীন আমবাগ পশ্চিমপাড়া আকসা মসজিদের গলির ভিতরে শহিদুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি বাসার ময়লা ফেলতে গেলে ওই নারীর মরদেহ দেখতে পায়। পরে তিনি জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ এ ফোন করলে বিষয়টি জানালে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহ উদ্ধারের পর সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে পুলিশ। তার গলায় আঘাতের চিহ্ন ছিল। মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। ওই নারীর গায়ে আকাশী রং এর জ্যাকেট পড়া ছিলো।
জিএমপির কোনাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: জিয়াউল ইসলাম বলেন, জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯- এ ফোন পেয়ে পুলিশ গিয়ে অজ্ঞাত পরিচয় হিসাবে নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে পিবিআই এর সহায়তায় পরিচয় পাওয়া যায়। মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট এবং পোশাকের বর্ণনা থেকে ধারণা করা হচ্ছে, গেল রাতে কোন এক সময় তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধে হত্যা করে হত্যাকারী পালিয়ে গেছে। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *